জেনেভায় বঙ্গবন্ধু জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন


March 18, 2020

যথাযথ মর্যাদায় ও আনন্দমুখর পরিবেশে গতকাল মঙ্গলবার সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও মুজিব বর্ষের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বছরব্যাপী জন্মশতবার্ষিকী ও ‘মুজিব বর্ষ’ উদযাপনের শুভসূচনা করা হয়েছে।

সকালে জেনেভাস্থ জাতিসংঘ দপ্তরে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি এবং সুইজারল্যান্ডে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. শামীম আহসান দূতাবাস প্রাঙ্গণে জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পাঞ্জলি অর্পণের মাধ্যমে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সূচনা করেন। এ উপলক্ষে দূতাবাস প্রাঙ্গণে আয়োজিত আলোচনা সভায় রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের বাণী পাঠ করা হয়।

অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের ওপর উন্মুক্ত আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। বঙ্গবন্ধুর ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’সহ অন্যান্য প্রকাশিত লেখার ওপর সংক্ষিপ্ত উপস্থাপনা করা হয়। এ ছাড়া বঙ্গবন্ধুর আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে বলিষ্ঠ বিচরণের ওপর ভিত্তি করে নির্মিত বিভিন্ন ব্যানার ও ছবির মাধ্যমে উপস্থাপিত প্রদর্শনী। সবশেষে বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনের কর্মকর্তারা ও কর্মচারীরা এ অনুষ্ঠানে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করেন। জাতির পিতার জন্মদিনের আনুষ্ঠানিকতায় বিশেষ মাত্রা যোগ করে একটি কেক কাটা হয়।

জেনেভায় বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনে জাতির পিতা জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে আলোচনা সভা। ছবি: বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন, জেনেভা, সুইজার‌ল্যান্ড

জেনেভায় বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনে জাতির পিতা জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে আলোচনা সভা। ছবি: বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন, জেনেভা, সুইজার‌ল্যান্ডরাষ্ট্রদূত মো. শামীম আহসান তাঁর বক্তব্যে স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার পথপরিক্রমায় সংঘটিত বিভিন্ন রক্তক্ষয়ী সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুর বিচক্ষণ নেতৃত্ব ও তাঁর রাজনৈতিক প্রজ্ঞার কথা শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন। এ ছাড়া বাঙালি জাতিসত্তার বিকেশে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানের অবদানের কথাও তিনি তুলে ধরেন। রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও মুজিব বর্ষের এই মাহেন্দ্রক্ষণ বাঙালি জাতির জন্য বিশেষ আনন্দের ও গৌরবের। জাতির এই ক্ষণজন্মা শ্রেষ্ঠ সন্তানের নির্ভীক, অমিত সাহসী ও জনদরদি নেতৃত্বই ছিল বাঙালি জাতির স্বাধীনতাসংগ্রামের দিকনির্দেশিকা। মুজিব বর্ষের বিশেষ মুহর্তে রাষ্ট্রদূত জাতির পিতার স্বপ্নের ‘সোনার বাংলা’ গঠনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নে সবাইকে সক্রিয় অংশগ্রহণের জন্য আহ্বান জানান।

উল্লেখ্য, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও মুজিব বর্ষ উদযাপনের লক্ষ্যে জেনেভায় বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন বছরব্যাপী কর্মসূচির উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। এ ধারাবাহিকতায় সুইজারল্যান্ডে বসবাসকারী বাংলাদেশি প্রবাসী এবং বিদেশি কূটনীতিকদের অংশগ্রহণে একটি আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী ও মুজিব বর্ষের উদ্বোধন করার পরিকল্পনা থাকলেও মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে সুইজারল্যান্ড সরকার কর্তৃক সব ধরনের জনসমাগম নিষিদ্ধ করার পরিপ্রেক্ষিতে এ অনুষ্ঠানের আকার ও প্রকৃতিতে পরিবর্তন করে দিবসটি উদযাপন করা হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

code

error: Content is protected !!